অনলাইনে আছেন

  • জন ব্লগার

  • ৪৪ জন ভিজিটর

সকল পোস্ট (ক্রমানুসারে)

ক্রুসেড কতটা বদলে দিয়েছিলো ইতিহাসের গতিপথ....

লিখেছেন লাবিব আহসান ২০২১-০৭-১৬ ০৬:২৩:০১

ক্রুসেড নিয়ে ঢাউস একটি সিরিজ লিখেছেন কবি আসাদ বিন হাফিজ। সে এক বিস্তৃত ইতিহাস। জেরুজালেম ছিল যিশুখ্রিস্টের জন্মভূমি এবং মুসা (আঃ) দাউদ (আঃ) ও মুহম্মদ(সাঃ)-এর বহু স্মৃতিবিজড়িত অতি পবিত্র স্থান। এজন্য ইহুদি, খ্রিস্টান ও মুসলমান এই তিন ধর্মাবলম্বীর কাছে জেরুজালেম ছিল সমান পবিত্র স্থান। কিন্তু জেরুজালেমে মুসলমানদের অধিকার প্রতিষ্ঠিত হলে খ্রিস্টানরা অস্বস্তিবোধ করে।      এছাড়া ১০০৯ সালে মিশরের ফাতেমীয় খলিফাদের শাসনকালে জেরুজালেমের কয়েকটি গির্জা বিনষ্ট হয় এবং পরবর্তীকালে সেলজুক...বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ২৩৫ বার পঠিত     

ইসলামের হারিয়ে যাওয়া ইতিহাস: মুসআব ইবন উমাইর (রাঃ)...

লিখেছেন কহেন কবি ২০২১-০৭-০৪ ১৫:৩৮:৫৫

  মক্কার এক হ্যান্ডসাম যুবক।আরবের সবথেকে দামী আর স্টাইলিশ ড্রেস পড়তেন।সবথেকে সেরা আতর ব্যবহার করতেন।বড়লোকের সন্তান। সে সময়কার সবচেয়ে স্টাইলিশ জুতা থাকতো তাঁর পায়ে। তখনকার যুগে ইয়ামেনী জুতা ছিল সারা বিশ্বে বিখ্যাত। আর যুবকের পায়ে থাকত ইয়ামেনী জুতার মধ্যেও সবচেয়ে দামী জোড়াটি।যুবকের নাম মুসআব ইবন উমাইর...। উষর আরবকে কেউ জাগাতে পারেনি, রোমক-পার্সী কেউ না।সপ্তম শতাব্দীর সেই সময়টা ছিল ইতিহাসের অন্ধকারময় সময়।এমন সময়ে আরবভূমি তার শ্রেষ্ঠ সন্তানের ছোঁয়ায় জেগে উঠল। এর প্রভাব থেকে নিজেক...বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ২৯০ বার পঠিত     

ইসলামের ইতিহাসে অন্যতম নারী উদ্যোক্তা...

লিখেছেন কহেন কবি ২০২১-০৬-১২ ১৬:৪০:৪৩

জুবাইদা বিনতে জাফর পঞ্চমবারের মতো হজ্বে যাচ্ছেন। তিনি লক্ষ্য করলেন যে, মানুষজন পানির সঙ্কটে ভুগছে। তিনি দেখতে পেলেন যমযম কূপের পানি মানুষজন অনেক বেশি সংগ্রহ করার ফলে পানির লেয়ার নিচে নেমে গেছে। কূপটি খনন করতে হবে।   জুবাইদা বিনতে জাফরের স্বামী ছিলেন ইসলামের ইতিহাসের বিখ্যাত খলিফা হারুন-অর-রশীদ। সেই হিশেবে জুবাইদার প্রভাব-প্রতিপত্তি ছিলো অনেক বেশি। মানুষের দুঃখ-দুর্দশা মোকাবিলায় তিনি কোনো উদ্যোগ নিলে সেটা বাস্তবায়ন করা তাঁর জন্য বেশ সহজসাধ্য। যমযম কূপ খনন, আরাফাতে একটি কূপ খনন করতে ত...বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ২৩০ বার পঠিত     

ভুলে যাওয়া ইতিহাস...

লিখেছেন কহেন কবি ২০২১-০৫-০৯ ০০:৫৬:০১

  ইতিহাসের সবচেয়ে ভয়ঙ্কর যোদ্ধাদের পক্ষ থেকে নামে মাত্র টিকে থাকা এক সালতানাতের আমিরের কাছে দূত এলো আত্মসমর্পণের আহ্বান জানাতে। কিন্তু ঐ আমির তা প্রত্যাখ্যান করে এমন এক কাজ করলেন যা ঐ সময় কেউ করা তো দূরের কথা চিন্তাও করতে পারতোনা। তিনি ঐ দূতদেরকে কতল করে তাদের খন্ডিত মস্তক সদর দরজায় ঝুলিয়ে রাখলেন.....   আপনাদের নিয়ে গিয়েছিলাম আজ থেকে প্রায় সাড়ে সাতশো বছরেরও আগের এক ইতিহাসের পাতায়। সেদিন ছিলো ২৫ শে রামাদ্বান ৬৫৮ হিজরি। অন্য সব দিনের মতো সেদিন ছিলো না। ইতিহাসের সবচেয়ে নৃশংস ও বর্বর...বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ২৬৬ বার পঠিত     

মুসলিম ইতিহাসের মানসপুত্র সৈয়দ আমীর আলী.......

লিখেছেন লাবিব আহসান ২০২১-০৪-০৬ ২১:২০:৫৮

আজ থেকে ১৭২ বছর আগের এমনই এক এপ্রিল মাসের ৬ তারিখ উড়িষ্যার কটক শহরে ইরানের মেশেদ থেকে আগত এক শিয়া মুসলিম পরিবারের বংশধারার সদস্য সৈয়দ সা’দাত আলীর গৃহে জন্ম নেয় এক পুত্র সন্তান। নাম সৈয়দ আমীর আলী (১৮৪৯-১৯২৮), যিনি পিতার পাঁচ পুত্রের মধ্যে ছিলেন চতুর্থ। পরবর্তীকালে যিনি আইনজীবী, ভারতীয় মুসলমানদের স্বার্থ সংরক্ষণে উদ্যোগী এবং ইসলামের ইতিহাস ও সমাজ বিষয়ক লেখক হিসেবে পালন করেন দৃষ্টান্ত স্থাপনকারী ঐতিহাসিক ভূমিকা।     সৈয়দ আমীর আলীর প্রপিতামহ ১৭৩৯ সালে নাদির শাহের সৈন্যদলের সা...বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ৩২১ বার পঠিত     

বদরঃ মুসলিম ইতিহাসের বাঁক ঘুরিয়ে দেয়া এক যুদ্ধ.........

লিখেছেন লাবিব আহসান ২০২১-০৩-১৪ ০৪:৪৬:৫২

বদর বদলে দিয়েছিলো ইসলামের তদানিন্তন ইতিহাসের গতিপথকে। মুসলিম ইতিহাসের প্রথম সশস্ত্র যুদ্ধ বদর। দ্বিতীয় হিজরির ১৭ রমজান মদিনার উপকণ্ঠে বদর নামক স্থানে মুখোমুখি হয় মুসলিম ও কুরাইশ বাহিনী। ঐতিহাসিক এ যুদ্ধ ছিল অসত্যের বিরুদ্ধে সত্যের লড়াই। ইসলাম ও মুসলিমদের অস্তিত্বের সংগ্রাম। বদর যুদ্ধে আল্লাহ তাআলা অসম প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে মুসলিম বাহিনীকে বিজয় দান করেন। অস্তিত্বের সংকট থেকে মুসলিম উম্মাহকে মুক্তি দিয়ে অমিত সম্ভাবনার দুয়ারে পৌঁছে দেন। ৬২৪ খ্রিস্টাব্দে তথা দ্বিতীয় হিজরির এই দিনে সংঘটিত হয়েছিল ইসলাম...বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ৩৬২ বার পঠিত     

আর্থিক স্বচ্ছলতা দ্বীনের ঝান্ডা ধরতে প্রতিবন্ধক নয়, সহায়ক.......

লিখেছেন লাবিব আহসান ২০২১-০১-২১ ০৫:২২:০৩

আমাদের মধ্যে ‘ইসলাম ও আর্থিক স্বচ্ছলতা’ টার্ম দুটো অনেকটাই যেন পরস্পরবিরোধী হয়ে পড়েছে। কিন্তু এ কথা দিবালোকের মতো সত্য, আর্থিক স্বচ্ছলতা মানুষকে স্বাধীনচেতা হতে শেখায়, আত্মসম্ভ্রমবোধসম্পন্ন মানুষে পরিণত করে। একজন ইসলামের পতাকাবাহী নেতার স্বাধীনচেতা হওয়াটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এমনকি স্বাধীনভাবে, নিশ্চিন্ত মনে জ্ঞান চর্চা করতেও সাহায্য করে। আপনি যখন ইমাম যাহাবি রহ. এর ‘সিয়ারু আলামিন নুবালা’ খুলবেন, নিবিষ্ট হয়ে যখন পড়তে শুরু করবেন ব্যবসায়ী আলেমদের জীবনী, ইলমচর্চা এবং ব্যবসার...বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ৩৫৫ বার পঠিত     

পানিপথঃ ইতিহাসের এক অনবদ্য আবাদভূমি.......

লিখেছেন লাবিব আহসান ২০২১-০১-১৪ ১৪:৪১:১৫

পানিপথ শহরের এক ধূসর প্রান্তর। চারদিকে তখন থমথমে পরিবেশ বিরাজ করছে। বাতাসের জোরালো আগ্রাসন আর ক্ষণে ক্ষণে ডেকে ওঠা যুদ্ধবাজ হাতি-ঘোড়ার ধ্বনি ব্যতীত আর কোনো শব্দ নেই। ইতিহাস একটি নতুন মাইলফলকের সামনে দাঁড়িয়ে আছে। একদিকে মোঘল অধিপতি বাবর তার ছোট সৈন্যদল নিয়ে প্রস্তুত। প্রায় আট হাজার সৈনিক সতর্কতার সাথে কান পেতে আছে বাবরের দিকে। যেকোনো সময় তারা ঝাঁপিয়ে পড়বে বাবরের নির্দেশে। অপরদিকে অনেকটা নিশ্চিন্তে থাকা ইব্রাহিম লোদির সুসজ্জিত বাহিনী। কারণ বাবরের চেয়ে তাদের শক্তিসংখ্যা প্রায় পাঁচ গুণ বড়। লোদির সৈন...বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ৪৬৬ বার পঠিত     

সাহাবীদের যুগে মহামারী......

লিখেছেন লাবিব আহসান ২০২০-১২-২৮ ০৩:১০:১৩

শামে মুসলিম ও রোমান বাহিনীর মধ্যে সংগঠিত যুদ্ধে অসংখ্য রোমান সেনা নিহত হয়। মুসলিম সেনাদের লাশ দাফন করার ব্যবস্থা হলেও রোমানদের লাশ দাফন করা হয়নি। জনমানবহীন বিস্তীর্ণ প্রান্তরজুড়ে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে পড়ে থাকে অসংখ্য লাশ। একটু একটু করে লাশ পচে-গলে দূষিত হতে থাকে আবহাওয়া আর জলাধার। এতে করেই সেখান থেকে সৃষ্ট নানা জীবাণু বিস্তার লাভ করে এবং মহামারির রূপ ধারণ করে। প্রাচীন ঐতিহাসিকদের এমন মতামতই তুলে ধরেছেন হাল আমলের বিখ্যাত ইতিহাসবিদ আলী সাল্লাবী ও রাগিব সারজানী। ইবন হাজার আসকালানী (রহ.) বলেন, ‘...বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ৩০৯ বার পঠিত     

সাঈদ ইবনুল মুসাইয়েব (রহঃ)- এর অজানা ইতিহাস...

লিখেছেন রূপা ২০২০-১১-২৫ ১৮:১৮:৩৮

সাঈদ ইবনুল মুসাইয়েব (রহঃ) প্রখ্যাত তাবেঈ ছিলেন। তাঁর দাদা ও পিতা ছাহাবী ছিলেন। তিনি ছাহাবীগণ থেকে বহু হাদীছ বর্ণনা করেছেন। বিশেষ করে তিনি ওছমান, আলী, যায়েদ বিন ছাবেত, আয়েশা ও উম্মে সালামা (রাঃ) থেকে হাদীছ বর্ণনা করেছেন। তিনি সর্বদা তাফসীর ও হাদীছের দরসদানে ব্যস্ত থাকতেন। তাঁকে আলিমুল ওলামা (আলেমকুল শিরোমণি) ও ফক্বীহুল ফুক্বাহা (ফক্বীহকুল শিরোমণি) বলা হ’ত। তিনি ইলম ও আমলে মদীনাবাসীর সর্দার ছিলেন। তিনি ছাহাবীগণের উপস্থিতিতে ফৎওয়া প্রদান করতেন। ইবনু ওমর (রাঃ) তাকে মুফতী বলে অভিহিত করেন। &nbs...বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ৩৪২ বার পঠিত     

 নিউজ আপডেট

 এ সপ্তাহের সর্বাধিক পঠিত পোস্ট

 এ সপ্তাহের সর্বাধিক মন্তব্যকৃত পোস্ট

 আর্কাইভ