অনলাইনে আছেন

  • জন ব্লগার

  • ৩৪ জন ভিজিটর

সকল পোস্ট (ক্রমানুসারে)

খিলজি, তুঘলকদের শাসন ও বাংলা সালতানাতের সূচনা

লিখেছেন আফগানী ২০১৯-০৭-১০ ২১:২২:১৭

  খিলজী রাজবংশ হল মধ্য যুগের মুসলিম রাজবংশ যারা ১২৯০ খ্রিস্টাব্দ থেকে ১৩২০ খ্রিস্টাব্দ পর্যন্ত ভারতের বিশাল অংশ শাসন করত। জালাল উদ্দিন ফিরোজ খিলজী এর প্রতিষ্ঠাতা। খিলজী শাসনামল অবিশ্বাস, হিংস্রতা এবং দক্ষিণ ভারতে তাদের শক্ত অভিযানের জন্য খ্যাত হলেও খিলজী শাসনামল মূলত ভারতে বর্বর মোঙ্গলদের বারংবার অভিযান রুখে দেওয়ার জন্য সুপরিচিত।   খিলজীরা ছিল দিল্লির মামলুক রাজবংশের সামন্ত এবং দিল্লির সুলতান গিয়াসউদ্দিন বলবনের সেনাপতি। বলবনের উত্তরাধিকারীদের ১২৮৯-১২৯০ সালে হত্যা করা হয় এবং এর...বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ১১২৬ বার পঠিত     

মিসর শাসনের অভিশাপ...

লিখেছেন Nazrul Islam Tipu ২০১৯-০৬-২৩ ২২:১৫:৪৮

আরবীতে "লা'নাতুল ফারাইনাহ্" (ফারাওদের অভিশাপ) নামে একটি প্রবাদ প্রচলিত আছে। প্রসিদ্ধি আছে যে, ফারাওদের কবরগুলোতে তাদের আত্মা এবং অশুভ শক্তি বসবাস করে, যেগুলো ফারাওদের মমিকে পাহারা দেয়। এই জন্য যারাই ফারাওদের কবর খুঁড়ে মমি বের করে তারা ফারাওদের অভিশাপের শিকার হয়। ফলে তারা পাগল হয়ে যায়, আর না হয় অন্যকোন দূরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্ত হয়ে মারা যায়। এরকম আরেকটি প্রবাদ হচ্ছে, "হুকমু মিসরা লা'নাতুন" অর্থাৎ - মিসরের শাসন একটি অভিশাপ। মিসরের ইতিহাসের দিকে তাকালে বোঝা যায় যে, প্রবাদটি একদম যথার্থ। বলা হয়...বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ৬১২ বার পঠিত     

মুসলিম উম্মাহর পতন সূত্র ও ইউরোপিয় উত্থান সূত্র...

লিখেছেন Md. Rifat Chowdhury ২০১৯-০৬-২৩ ০০:৫১:৪২

মুসলিম নেতৃত্বের সভ্যতার টাইমফ্রেমটা অনেক দীর্ঘ। বলতে গেলে ৬৩২ খ্রীস্টাব্দ থেকে ১৯২৩ সাল। এরমধ্যে বিশ্বারাজনীতিতে আধিপাত্য ও নেতৃত্বের ভূমিকায় ছিলো ৬৩২ খ্রীস্টাব্দ থেকে ১৭০০ শতকের আগ পর্যন্ত। এরমধ্যেও আবার কথা আছে। ৭০০ শতক থেকে ১৫০০ শতক পর্যন্ত মুসলিম সভ্যতা ছিলো অসমান্তরালভাবে একচ্ছত্র........... রাজনীতি, অর্থনীতি, শিক্ষা, বিজ্ঞান, প্রযুক্তি, সামরিক সব সেক্টরে। তার মধ্যে ৭০০ শতক থেকে ১০০০ শতকের আগ পর্যন্ত ছিলো চরম নিরংকুশ মুসলিম গোল্ডেন এজ। কিন্তু কথা হলো ঠিক কবে থেকে মুসলিম উম্মাহর পতনটা শু...বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ৭২৪ বার পঠিত     

মোঘল সম্রাট হুমায়ূনঃ যে ইতিহাস গল্পের চেয়েও রোমাঞ্চকর........

লিখেছেন লাবিব আহসান ২০১৯-০৬-১৬ ২০:৪০:৩১

ইতিহাস কখনও কখনও গল্পকেও হার মানাতে পারে বোধহয়। মার্ক টোয়েন বলেছিলেন, "সত্য গল্পের চেয়েও রোমাঞ্চকর।" তাঁর এই বিখ্যাত উক্তিটি সম্ভবত ভুল নয়। ইতিহাসের কিছু কিছু ঘটনাকে মনে হতে পারে কাকতালীয়। কিন্তু ইতিহাসের এই চমকপ্রদ ঘটনাবলী সময় আমাদের হাতে অত্যন্ত যত্ন করে পৌঁছে দিয়েছে। মোঘল সম্রাট বাবর দাঁড়িয়ে আছেন পুত্র হুমায়ূনের শিয়রের কাছে। শাহজাদা হুমায়ূন তীব্র অসুস্থতায় অচেতন। ঘরের দরজা জানালা বন্ধ। তিনটি প্রদীপ জ্বলছে মিটিমিটি। সম্রাট বাবর পুত্রের মাথার পাশ থেকে ঘুরতে শুরু করলেন। মনে মনে বলতে লাগলেন, "পু...বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ১০৩০ বার পঠিত     

কুষাণ সাম্রাজ্য ও বৌদ্ধধর্মের বিকৃতির ইতিহাস

লিখেছেন আফগানী ২০১৯-০৬-১৬ ০০:৩৪:৩৬

  গত পর্বে সাতবাহন সাম্রাজ্য পর্যন্ত এসেছিলাম। সাতবাহনরা মূলত অন্ধ্রপ্রদেশ ভিত্তিক হিন্দুস্থানের দক্ষিণ অংশে শাসন করতো। তারা বাংলা অধিকার করলেও বাংলায় তাদের ভালো প্রভাব কখনোই স্থায়ী হয়নি। তবে তারা ভারতের দক্ষিণ অংশে বহু বছর শাসন করেছে। এই অংশে যাতায়াতের ভালো সুবিধে না থাকায় বিদেশী কোনো গোষ্ঠীই সাতবাহনদের পরাজিত করতে সক্ষম হয়নি বহু বছর। ঈশা আ. জন্মের ২৩০ বছর আগে থেকে শুরু হওয়া এই সাম্রাজ্য ইশা আ. জন্মের পরে আরো ২২০ বছর রাজত্ব করে। তাদের ইতিহাস প্রায় সাড়ে পাঁচশত বছরের ইতিহাস। আমরা যেহেতু ব...বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ৭৯৭ বার পঠিত     

হযরত উমর রা..-এর জীবনী পঠন এবং আমার উপলব্ধি...

লিখেছেন জিবরান ২০১৯-০৬-১২ ১৮:১৯:২৩

ঈদের ছুটিটা বেশ লম্বাই পেয়েছিলাম। প্রায় ১০ দিনেরও বেশি। ছুটিটা আমার জন্য একটু বেশিই মনে হচ্ছিলো। এ সুযোগে বিরাট একটা বই পড়ে ফেললাম। বইটি ছিল পৃথিবীর অন্যতম শ্রেষ্ঠ শাসক, যার অধীনে প্রায় অর্ধবিশ্ব শাসিত হয়েছে মুসলিম বিশ্বের খলিফা আমিরুল মুমিনীন উমর ইবনুল খাত্তাবের জীবন নিয়ে আরব স্কলার ড. আলি মুহাম্মাদ সাল্লাবি রচিত দুই খন্ডের জীবনী গ্রন্থটা পড়ে শেষ করলাম। এই বইটি পড়তে গিয়ে কখনো হয়েছি আনন্দিত, কখনো হয়েছি রোমাঞ্জিত আর কখনোবা নিজের অজান্তেই কেদে ফেলেছি।হযরত উমরের এই জীবনী পড়তে গিয়ে কখনো কখনো এম...বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ৯০০ বার পঠিত     

বাংলায় আর্যদের সামরিক ও সাংস্কৃতিক আগ্রাসন

লিখেছেন আফগানী ২০১৯-০৬-১১ ২১:০৯:৩৬

এখন থেকে প্রায় চার হাজার বছর আগের কথা। আর্য নামের এক জাতি ধ্বংসপ্রবণ জাতি প্রবেশ করেছিল উত্তর ভারতে। তবে বাংলা দখল করতে তাদের আরো এক হাজার বছর প্রয়োজন হয়। দ্রাবিড় অধ্যুষিত সিন্ধু, পাঞ্জাব ও উত্তর ভারত আর্যদের দখলে চলে যাওয়ার পর এই যাযাবরদের অত্যাচারে টিকতে না পেরে অধিকাংশ দ্রাবিড় দক্ষিণ ভারত, শ্রীলংকা ও বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়। আর্যরা তাদের দখল বাড়াতে আরো পূর্বদিকে অগ্রসর হয়। সামরিক বিজয়ের সাথে সাথে বৈদিক আর্যরা তাদের ধর্ম-সংস্কৃতির বিজয় অর্জনেও সকল শক্তি নিয়োগ করে। পুরো উত্তর ভারত আর্যদের অধীনতা...বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ৮৪৪ বার পঠিত     

আজ ইস্তানবুল বিজয়ের দিন

লিখেছেন আফগানী ২০১৯-০৫-২৯ ২২:১৫:৩৭

  আজ ২৯ মে। ১৪৫৩ সালের এই দিনে মুসলিমরা ইস্তানবুল অধিকার করে। সুলতান ফাতিহ মুহাম্মদের অসাধারণ নৈপুণ্যে সেকালের কনস্টান্টিনোপল বিজয় হয়। অধিকার করার পর নাম ইস্তানবুল বা শান্তির শহর।    একদা এই ইস্তাম্বুলই ছিল পৃথিবী শাসনকারী বাইজ্যানটাইন ও পরবর্তীতে উসমানিয়া সাম্রাজ্যের রাজধানী। ইস্তাম্বুলে রয়েছে প্রভাবশালী সাহাবা আবু আইয়ুব আনসারী ও আরও অনেক সাহাবার পবিত্র সমাধি এবং ইস্টার্ন অর্থোডক্স খ্রিস্টানদের মূল উপাসনালয় হাজিয়া সোফিয়া। সৌন্দর্যে অনন্য হাজিয়া সোফিয়া শুধু উপাসনালয়ই নয়, বর...বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ৪১৩ বার পঠিত     

মুসলমানদের পতন ও প্রিন্টিং প্রেস!

লিখেছেন জিবরান ২০১৯-০৫-২১ ১৯:১৪:৫২

প্রিন্টিং প্রেস ও মুসলমানদের পতন নিয়ে ইয়াসির কাজীর একটা আলোচনা দেখলাম। এই প্রথম উনার কোন আলোচনা শুনলাম। আলোচনাটা উপকারী মনে হয়েছে, যদিও কিছু কথার সাথে দ্বিমত রাখি। পৃথিবীতে প্রথম কাগজ আবিস্কার করে চাইনিজরা৷ যিশু খ্রিস্টের জন্মের কয়েকশো বছর আগে। কিন্তু এই কাগজ তৈরির পদ্ধতি সবাইকে শেখানো হতো না, নির্দিষ্ট একটি দলে যুক্ত হয়ে তা শিখতে হতো। সে দলে যুক্ত হওয়া ছাড়া কাগজ তৈরির প্রক্রিয়া শেখার কোন উপায়ই ছিলো না। ইসলামের শুরুতে কুরআনের আয়াতগুলো চামড়ায়, উটের হাড়ে লিখে রাখা হতো। যা ছিলো খুব বৃহৎ আকারের...বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ৪৫৯ বার পঠিত     

সোনার বাংলায় সব ছিল, ছিল না ফেসবুক; আর এখন নেই কিছু, আছে ফেসবুক।

লিখেছেন কহেন কবি ২০১৯-০৪-৩০ ১৮:৪৩:০৬

#সাল_১৯৭৮ঢাকা মেডিকেলের যৌতুকলোভী ও চরিত্রহীন ডাক্তার ইকবালকে কাজের মেয়ের সাথে অন্তরঙ্গ অবস্থায় দেখে ফেলে স্ত্রী সালেহা। ফলাফল, ইকবাল ব্লেড দিয়ে গলা কেটে হত্যা করে সালেহাকে। বলে আত্মহত্যা। অস্থায়ী বিচারপতি আব্দুস সাত্তারের পরিবারের সাথে ঘনিষ্ঠ যোগাযোগ ইকবালের পরিবারের।সালেহার পরিবার বলে হত্যা। সালেহার পক্ষে দেশবাসী। ঐ সময় জেলা শহরগুলিতে পত্রিকা পৌঁছাত একদিন পরে। কম্পিউটার আবিস্কার হয়নি।ফলাফল?- প্রথম ও দ্বিতীয় দফা ময়না তদন্ত রিপোর্টে বলা হয় আত্নহত্যা।দেশবাসী মেনে নেয়নি।তৃতীয় দফায় কবর থেকে লাশ ত...বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ১৪৮৮ বার পঠিত     

 নিউজ আপডেট

 এ সপ্তাহের সর্বাধিক পঠিত পোস্ট

 এ সপ্তাহের সর্বাধিক মন্তব্যকৃত পোস্ট

 আর্কাইভ