অনলাইনে আছেন

  • জন ব্লগার

  • ২৬ জন ভিজিটর

বাংলাদেশের ১ম ব্যান হওয়া অডিও

লিখেছেন আফগানী শনিবার ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২২

 

তখন এন্ড্রয়েডের যুগ ছিল না। হাতে হাতে ছিল না মোবাইল ফোন। ২০০৯ সালের কথা। পিলখানায় সেনা অফিসারদের খুন করার বেশ কয়েকদিন পর হাসিনা সেনা হেডকোয়ার্টারে অফিসারদের মুখোমুখি হলো।

 

সেখানে ব্যাপক তোপের মুখে পড়ে হাসিনা। বস্তুত হাসিনাকে সেদিন সেনা অফিসাররা পিলখানা হত্যাকাণ্ডের জন্য দায়ী করে। অফিসারদের মধ্যে কেউ সেই সমাবেশের অডিও রেকর্ড করে।

 

হাসিনার সাথে যারা উত্তেজিত কথা বলেছে তারাসহ প্রায় ২০০ জন অফিসারকে সেনাবাহিনী থেকে চাকুরিচ্যুত করা হয়। চাকুরিচ্যুত হওয়ার আগে সেই অডিও রেকর্ড ইউটিউবে ফাঁস হয়।

 

২০০৯ সালে একদিন সন্ধ্যায় এটা নিয়ে বেশ হইচই পড়ে যায় হলে। আমি তখন বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র। আমাদের কম্পিউটারে LAN কানেকশনের মাধ্যমে ইন্টারনেট যুক্ত ছিল। তবে এটা এতো স্লো ছিল যে, আমরা সাধারণত কোনো ভিডিও দেখতে হলে আগে অনেকসময় ধরে ডাউনলোড করে নিতাম।

 

আমি ডাউনলোড দিয়ে অন্য কাজ করছিলাম। অনেকক্ষণ পর এসে চেক করতে গিয়ে দেখি ইউটিউব ডাউন। এর কিছুক্ষণ পর ফেসবুকও ডাউন। এটাই সম্ভবত প্রথম সরকার কর্তৃক সোশ্যাল মিডিয়া ডাউন করার ঘটনা।

 

যাই হোক আমার পিসিতে ডাউনলোড হয়নি। এরপর হন্যে হয়ে খুঁজলাম। রাতেই হলের এক বড়ভাইয়ের কাছে অডিও রেকর্ডটা পাই। সেটা পেন্ড্রাইভে করে ইউনিভার্সিটিতে ছড়িয়ে দিয়েছিলাম।

 

এরপর কত বছর পার হয়ে গেল। আজ হঠাত সেই অডিওর কথা মনে পড়লো। ইউটিউব ঘেঁটে অল্প একটু অংশ পেয়েছি।

 

বাংলাদেশের ১ম ব্যান হওয়া অডিও-এর অংশ বিশেষ দিয়েছি। শুনে নিতে পারেন। এভাবে কথা বলার মতো আর্মি অফিসার সম্ভবত এখন দেশে কেউ নাই। এখনের লোকেরা ভাত খায় আর মুদিমাল বেচে। আর দুইবেলা ভাতের ব্যবস্থা করায় হাসিনার পা চাটে।


০ টি মন্তব্য      ৮৭ বার পঠিত         

লেখাটি শেয়ার করতে চাইলে: