অনলাইনে আছেন

  • জন ব্লগার

  • ৪২ জন ভিজিটর

ড্রাইভারের দোষে পরিবহন নিষিদ্ধ! কতটুকু আইনসিদ্ধ!

লিখেছেন Nazrul Islam Tipu বুধবার ২০ মার্চ ২০১৯

যে আবরার একদা নিরাপদ যাত্রার জন্য রাস্তায় মানব বন্ধন করেছে আজ তাকেই তার নির্মম শিকার হতে হয়েছে! একটি গাড়ীর দোষে, দুঃখিত একজন ড্রাইভারের দোষে পুরো পরিবহন নিষিদ্ধ করাও কতটুকু যুক্তিযুক্ত হতে পারে! মাত্র দশ মাস আগেই জাবালে নূরের আঘাতে দুজন শিক্ষার্থী নিহত হলে সারা দেশে কি তুলকালাম কাণ্ডই না ঘটে গেল। সে পরিবহনও নিষিদ্ধ হয়েছিল এবং রাতারাতি নাম পাল্টিয়ে সদম্ভে আবার রাস্তায় নেমেছে। এসব সিদ্ধান্ত প্র্যাকটিক্যাল নয় কিন্তু ঘটনায় দিশাহারা হারিয়ে উপস্থিত একই সিদ্ধান্ত বারে বারে নেয়।

আচ্ছা! যে সব গাড়ীর যাত্রী তোলার কথা ফুটপাতের পাশে দাড়িয়ে, তারা যদি যথাযথ স্থান থেকে এই কাজ করে তাহলে পিছনের একটি গাড়ির পক্ষে কাউকে পিষে মারা সম্ভব নয়। ঢাকার ঐ রাস্তায় গতিময় গাড়ীগুলো মাঝের ট্র্যাকে দাড়িয়েও যাত্রী তুলে! আবার ফুটপাতের পাশের সাথে লাগোয়া ট্র্যাকটি ধীর গতির গাড়ী যাত্রীর অভাবে গতিহীন হয়ে চলতে থাকে। ফলে গাড়ী ধরার জন্য প্রায় পুরো রাস্তাতেই যাত্রীরা ছুটোছুটি করে। এটা পরিষ্কার অব্যবস্থাপনার কারণেই হয়। রাস্তা ক্রস করার সময় দুর্ঘটনা ঘটে সেগুলোর অনেকটা কর্পোরেশনের সিস্টেম ও যাত্রীর অবহেলাই দায়ী থাকে।

সকালে দেড়শ কিমি গাড়ী নিজে চালিয়ে অফিস করে বিকেলে আবার সেই পরিমাণ পথ পাড়ি দিয়ে বাসায় ফিরতে হয়েছে। আমার মত হাজারো মানুষের কঠোর দিন পার এই হয় প্রবাসে। এত গাড়ী চলে, দশ মিনিটের যান-জটে চল্লিশ কিমি পর্যন্ত গাড়ীর জ্যাম সৃষ্টি হতে পারে। এদেশে এত অনিয়ম নেই। মানুষের মৃত্যু দূরে থাক, একটি সামান্য দুর্ঘটনার জন্যও এখানে আইনের পরিবর্তন হয়। আইন মেনে চলতে হয়। হউক তিনি রাষ্ট্রের কর্ণধার। 
একদা রাস্তা পার হতে একটি ক্ষুদে স্কুল শিক্ষার্থী গাড়ীর ধাক্কায় মারা যায়। কারো দোষ ছিলনা, তকদির তাকে ভাগ্যহত করেছিল। তারপরও এমন কানুন করেছে যে, স্কুলের গাড়ী দাঁড়ালে অন্য গাড়ীকে পিছনে দাঁড়িয়ে থাকতে হয়। অথবা স্কুলের বাসে আশ-পাশ এড়িয়ে চলো। স্কুলের গাড়ীটাই একটি সিগন্যাল পোষ্টের মত কাজ করে। শহরে স্কুল টাইমে ভারি-গাড়ি প্রবেশ নিষিদ্ধ।

তাই আমাদের দেশে যথাযথ কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করা উচিত। ড্রাইভারদের ফিটনেস ও দায়বদ্ধতা সবচেয়ে বেশী জরুরী। স্কুলের একটি সময় আছে, চাকুরী জীবীদেরও নির্দিষ্ট সময় আছে। তাই স্কুল খোলা ও ছুটির সময় গুলোকে ড্রাইভারেরা যাতে আরও বেশী সতর্ক হয় সে ব্যাপারে আইন মানার পরিবেশ সৃষ্টি করা অতীব জরুরী।


নিরাপদ সড়ক চাই
০ টি মন্তব্য      ২৯৫ বার পঠিত         

লেখাটি শেয়ার করতে চাইলে: