অনলাইনে আছেন

  • জন ব্লগার

  • ২৫ জন ভিজিটর

নোটিশ বোর্ড

বাংলাদেশে মোসাদ...

লিখেছেন আফগানী ২০২২-০৫-২৬ ২২:৩৫:০৯

  ঢাকা বিমানবন্দর। নভেম্বর ২০০৩। একটি বিমান ছেড়ে যাবে ব্যাংককের উদ্দেশ্যে। সব কিছু ঠিকঠাক। এর মধ্যে বিমানে ঘটাঘট উঠে পড়লেন সিকিউরিটি অফিসাররা। ইনকিলাব পত্রিকার এক সাংবাদিক সালাউদ্দিন শোয়েব চৌধুরিকে তল্লাশি করা শুরু করলেন। তারপর নিশ্চিত হয়ে তাকে নিয়ে নেমে গেলেন বিমান থেকে। ইনকিলাব পত্রিকা এদেশের হুজুরবান্ধব পত্রিকা। এই পত্রিকার সাংবাদিক ছিলেন সালাউদ্দিন শোয়েব চৌধুরি।    গোয়েন্দা তথ্য পেয়ে ডিবি তাকে এরেস্ট করে। পরে তার কাছে তল্লাশি করে সে তথ্যের সত্যতা পায়। শোয়েব চৌধুরির কাছে ত...বাকিটুকু পড়ুন

২ টি মন্তব্য      ১২৫৭ বার পঠিত         
সকল পোস্ট (ক্রমানুসারে)

“ইসলামী রাষ্ট্র” চান, নাকি সঙ্গতিশীল আইনের অপটিমাইজড ইমপ্লিমেন্টশন চান?

লিখেছেন অদ্রি হাসান ২০১৯-০৪-০৬ ২১:৫৭:০৫

বাংলাদেশের বর্তমান আইনের প্রায় ৯০% ইসলামের মূলনীতির সাথে সঙ্গতিশীল। তাহলে আমরা কি একটি “ইসলামী রাষ্ট্র” নামক সরকার গঠনের স্লোগান দিব, নাকি সঙ্গতিশীল আইনের অপটিমাইজড ইমপ্লিমেন্টশেনর (সর্বোচ্চ কার্যকরকরণ) স্লোাগান দিব?   কিছু ইসলামী রাজনৈতিক দলকে এই স্লোগানে ফোকাস করতে দেখছি, কিন্তু বিদ্যমান রাজনীতি ফ্যাংশন করে জনগণের ইচ্ছায়, আর বেশিরভাগ জনগণ তো ইসলামী রাষ্ট্র নামক সরকারকে স্বাগত জানায় না, প্রযোজনীয়তা উপলব্ধি করে না। তো ইসলামি রাজনীতিবিদরা এ লিভিং ডেড পলিসি নিয়ে কিভাবে পুনর্জাগ...বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ৪২৭ বার পঠিত         

বাঙালের পুড়ে মরার জন্য বাঙাল নিজেই দ্বায়ী।

লিখেছেন Shahmun ২০১৯-০৪-০৬ ১৮:২০:২১

সিফাত উল্লাহ সেফুদা! সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এই নামটি ব্যাপক আলোচিত এবং সমালোচিত নাম। আমি সিফাত উল্লাহকে নিয়ে কিছু বলতে চাই না। তবে সিফাত উল্লাহর বলা একটি কথাকে উল্লেখ করতে চাই। সিফাত উল্লাহ বলেন, ‘ইশ! কেন যে বাঙাল হয়ে জন্মেছিলাম। এই জাতির চেয়ে নিকৃষ্ট জাতি আর একটিও নেই।’   সিফাত উল্লার কথা নিয়ে সবাই হাসাহাসি করলেও, সিফাত উল্লাহর এই কথার সাথে আমি একমত। কারণ, এই জাতি ‘শর্ট টার্ম মেমরি লস’ জাতি। দেশের কোনো একটি ঘটনা ঘটার পরপরই পূর্বের ঘটনার সবকিছু ভুলে যায়...বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ৩৪৯ বার পঠিত         

বাংলাদেশে এসএসসি-এইচএসসি দুটোতেই গোল্ডেন পাওয়া ছেলেমেয়ের সংখ্যা খুব বেশি না; কিন্তু কেন?

লিখেছেন Muhammad Sajal ২০১৯-০৪-০৬ ১৭:০৮:৪৫

বাংলাদেশে এসএসসিতে অনেকেই গোল্ডেন পায়, এইচএসসিতেও পায়, কিন্তু এসএসসি-এইচএসসি দুটোতেই গোল্ডেন পাওয়া ছেলেমেয়ের সংখ্যা খুব বেশি না। এর কারন এনএস করিডোর।প্রতিটা এইচএসসি পরীক্ষায় একটা ন্যারো, স্লিপারি করিডোর থাকে। সংক্ষেপে সেটাকে আমরা এনএস করিডোর বলতে পারি। এই করিডোরগুলো বানান শিক্ষাবোর্ড কর্তারা। রুটিন এমনভাবে সাজানো হয় যেন চার থেকে পাচটা পরীক্ষা আট থেকে বারো দিনের ভেতর হয়। এই পরীক্ষাগুলো সাধারনত হয় ডিসিপ্লিনারি ম্যান্ডেটরি সাবজেক্টগুলার। সায়েন্সের ক্ষেত্রে ফিজিক্স-কেমিস্ট্রি-বায়োলজি। এনএস করিডোর...বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ৩৯৮ বার পঠিত         

নতুন দলের আগমনি গুঞ্জন এবং কিছু কথা...

লিখেছেন জিবরান ২০১৯-০৪-০৬ ১৭:০১:০৮

বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী থেকে পদত্যাগকারী এবং বহিস্কৃত দুই নেতার তত্বাবধানে নতুন রাজনৈতিক দল গঠনের গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে। এটি অবশ্য আরো আগে হয়ে যাওয়ার কথা ছিল। ময়দানের অবস্থা যেমনটি উর্বর মনে করা হয়েছিল তেমনটি উর্বর না পেয়ে হয়ত এই বিলম্ব। বাংলাদেশে নিবন্ধিত অনিবন্ধিত মিলে প্রায় সত্তরের উপরে রাজনৈতিক দল থাকলেও নতুন দলের উদ্যোক্তাগণ সেদিকে ফিরে না তাকানোর কারণে মনে করা হচ্ছে তাঁদের দল সামথিং স্পেশাল হবে। তাঁদের মূল স্পেশালিটি অবশ্য বেশ আগেই ডিকলার করা হয়ে গেছে এবং তা হলো ১৯৭১ সালে জামায়াতের ভূমিকা...বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ৩৭৮ বার পঠিত         

পহেলা বৈশাখ পালনে ইমান নষ্ট হয় না।

লিখেছেন তারিক মাহমুদ ২০১৯-০৪-০৬ ১৬:৪৮:২১

ইনু বলল : পহেলা বৈশাখ পালনে ইমান নষ্ট হয় না। কথাটার সাথে আমি শ'ভাগ একমত। পহেলা বৈশাখ পালনে ইমান আসলেই নষ্ট হয় না। কারণ ইমান মানে তো বিশ্বাস। এটা নববর্ষের মত কোন কালচার পালনের মাধ্যমে নষ্ট হবার নয়। কিন্তু নববর্ষ পালনের কালচারে যদি কোন পৌত্তলিক কর্ম বা ভিন্নধর্মের উপাসনার চর্চা হয় সেটা কবিরা গুনাহ বা শিরকের পর্যায়ে যেতে পারে। সেটা সত্যিই ইমানের খরার কারণ হবে। নববর্ষ তো আমরা ইবাদাত হিসেবে পালন করি না। সুতরাং এটা বিদআত হবার কোন সম্ভবনা নেই। এটা শুধুই উৎসব। সুতরাং পালনের ধরণ অনুসারে এটা বৈধ, মাক...বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ৪৯৯ বার পঠিত         

রাসূল (সাঃ) এর সংগ্রামী জীবন ও অন্ধের হাতি দর্শনের গল্প.........

লিখেছেন লাবিব আহসান ২০১৯-০৪-০৬ ০৫:২২:৪৮

একদল অন্ধকে হাতি দেখানোর জন্য নিয়ে আসা হয়েছে। তাদেরকে সারিবদ্ধভাবে দাঁড় করিয়ে রেখে সামনে একটি বৃহদাকার হাতি আনা হলো। অন্ধদের মধ্যে তীব্র কৌতুহল লক্ষ্য করা যাচ্ছে। তারা রীতিমতো শিহরিত! এবার অন্ধদেরকে হাতি দেখার জন্য ছেড়ে দেয়া হলো। অন্ধদের কেউ গিয়ে হাতির পা ধরলো, কেউ লেজ ধরলো, কেউ শূড় ধরলো, কেউবা ধরলো কান, আবার কেউবা পেট স্পর্শ করলো। দেখা শেষ হলে সব অন্ধকে ডেকে নিয়ে এসে আবার সারিবদ্ধভাবে দাঁড় করানো হলো। এবার ইন্টারভিউ পর্ব। প্রত্যেককে একই প্রশ্ন করা হলো, “হাতি তুমি কেমন দেখলে?”এবা...বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ১৬২৯ বার পঠিত         

আবহমান কালের ইসলামী সংস্কৃতি আর এই সময়ে বিভিন্ন গায়ক-কবিদের গান-কবিতায় প্রচলিত ইসলামী সংস্কৃতি এক নয়।

লিখেছেন Khomenee Ehsan ২০১৯-০৪-০৪ ১৬:৫৫:১৪

আবহমান কালের ইসলামী সংস্কৃতি আর এই সময়ে বিভিন্ন গায়ক-কবিদের গান-কবিতায় প্রচলিত ইসলামী সংস্কৃতি এক নয়। এরা ইসলামী সংস্কৃতির নামে আধুনিকতার চর্চা করে। এখন আধুনিকতা বলতে আপনি কী বুঝবেন, প্রাগ্রসরতা না পশ্চাদপদতা? হাহাহা... বহু বেকুব প্রগতিশীলই জানেন না বোঝেন না একুশ শতকেরও অনেক আগে আধুনিকতা পশ্চাদপদ বলে খারিজ হয়ে গেছে। এটি হয়েছে পশ্চিমা দার্শনিক ও বুদ্ধিজীবীদের হাতেই। তার উত্তর আধুনিক, উত্তর উত্তর আধুনিক চিন্তা-দর্শনের বিকাশ ঘটিয়েছেন। যার ফলে অনেক আধুনিক চিন্তাই পরিত্যক্ত হয়ে গেছে। এখন মুশকিলটা দ...বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ৩৭৬ বার পঠিত         

তুরস্ক কি আর সবকটি গণতান্ত্রিক দেশের মতো দ্বিদলিয় ধারায় পাকাপোক্ত হতে যাচ্ছে?

লিখেছেন কহেন কবি ২০১৯-০৪-০৩ ২০:৩৮:৫৪

গত ৩১ মার্চ হয়ে গেলো তুরস্কের স্থানিয় নির্বাচন। নির্বাচনের পূর্বে বিশ্লেষণ ছিলো এরদোয়ানের একে পার্টির ভোটের জনপ্রিয়তায় ভাটার টান পড়তে যাচ্ছে, এবং ২০২৩ সালের নির্ধারিত শিডিওলড প্রেসিডেন্ট ও পার্লামেন্টারি নির্বাচনের আগেই আগাম নির্বাচনের দিকে এগিয়ে যাবে তুরস্ক। কিন্তু নির্বাচন পূর্ব এই বিশ্লেষণ ভুল প্রমাণিত হয়েছে। যথারীতি সারা তুরস্কে ক্ষমতাসীন একে পার্টির সার্বিক জনপ্রিয়তা অটুট আছে বলেই প্রমাণিত হয়েছে। যদিও রাজধানী আংকারা সহ বেশ কয়েকটি বড় শহরে খুবই টাইট ক্লোজ মার্জিনে একে পার্টি পরাজিত হয়েছে। ই...বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ৫৭২ বার পঠিত         

এক ক্ষমতালোভী স্বৈরশাসকের পরিণতি...

লিখেছেন জিবরান ২০১৯-০৪-০৩ ১৭:৪৭:৪০

তুরষ্কের 'বার্ক' হোটেলে চিকিৎসা চলছে মোস্তফা কামাল আতাতুর্কের। পশ্চিমাদের এই পা-চাটা গোলাম তখন মৃত্যুর প্রহর গুণছে। প্রাণ যায় যায় অবস্থা। কোনো ধরণের চিকিৎসা কাজে আসছে না। ডাক্তাররাও অপারগ হয়ে গেছে। অপারগ না হয়ে উপায় আছে? রোগটাই যেখানে সনাক্ত করা যাচ্ছে না! এ এক অদ্ভুত রোগ! ডাক্তারদের অবস্থা হলো, দুপেয়ে এই পশুটার প্রাণবায়ুটা কোনোরকম বেরিয়ে গেলে তারা হাঁফ ছেড়ে বাঁচল! ওর প্রতিটা মুহূর্ত অতিবাহিত হচ্ছে হেচকা টান দিয়ে দিয়ে! একবার নিঃশ্বাস ফেলার পর আরেকবার তা নেয়ার আশাই নাই। এরকম একটি নাজুক, ভয়ানক ও...বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ৪২২ বার পঠিত         

ঢাকা শহরের প্রতিটি বিল্ডিং-ই এক-একটি সুপ্ত ভিসুভিয়াস আগ্নেয়গিরি!

লিখেছেন Shahmun ২০১৯-০৪-০২ ১৯:৫২:৫৬

৭৯ খ্রিস্টাব্দের কোনো একদিনের ঘটনা! ইতালির কাম্পানিয়া অঞ্চলের কাছে অবস্থিত পম্পেই নগরীতে অন্যান্য দিনের মত স্বাভাবিক কাজ-কর্ম চলছে। পানশালায় মাতালরা মদ খেয়ে মাতলামো করছে। হাম্মামখানায় কেউ কেউ একত্রিত হয়ে গোসল করছে। শহরের রাস্তাগুলোতে বাচ্চারা হৈ-হুল্লোড় করে খেলাধুলা করছে। আর এই শহরটি যেকারণে বিখ্যাত সেই যৌনপল্লীগুলোতে কেউ কেউ আদিম খেলায় মেতে উঠেছে। এই শহরে আদিম খেলাটা শুধু নারী আর পুরুষের মধ্যেই হতো না। পুরুষে-পুরুষেও হত। শোনা যায়, সেই শহরে নাকি পুরুষদের নিয়েও যৌনপল্লী গোড়ে তোলা হয়েছি...বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ৫৮৯ বার পঠিত         

 নিউজ আপডেট

 এ সপ্তাহের সর্বাধিক পঠিত পোস্ট

 এ সপ্তাহের সর্বাধিক মন্তব্যকৃত পোস্ট

 আর্কাইভ