অনলাইনে আছেন

  • জন ব্লগার

  • ৩১ জন ভিজিটর

নোটিশ বোর্ড

বাংলাদেশে মোসাদ...

লিখেছেন আফগানী ২০২২-০৫-২৬ ২২:৩৫:০৯

  ঢাকা বিমানবন্দর। নভেম্বর ২০০৩। একটি বিমান ছেড়ে যাবে ব্যাংককের উদ্দেশ্যে। সব কিছু ঠিকঠাক। এর মধ্যে বিমানে ঘটাঘট উঠে পড়লেন সিকিউরিটি অফিসাররা। ইনকিলাব পত্রিকার এক সাংবাদিক সালাউদ্দিন শোয়েব চৌধুরিকে তল্লাশি করা শুরু করলেন। তারপর নিশ্চিত হয়ে তাকে নিয়ে নেমে গেলেন বিমান থেকে। ইনকিলাব পত্রিকা এদেশের হুজুরবান্ধব পত্রিকা। এই পত্রিকার সাংবাদিক ছিলেন সালাউদ্দিন শোয়েব চৌধুরি।    গোয়েন্দা তথ্য পেয়ে ডিবি তাকে এরেস্ট করে। পরে তার কাছে তল্লাশি করে সে তথ্যের সত্যতা পায়। শোয়েব চৌধুরির কাছে ত...বাকিটুকু পড়ুন

২ টি মন্তব্য      ৫৭২ বার পঠিত         
সকল পোস্ট (ক্রমানুসারে)

দ‍্যা ল‍্যান্ড অব ব্রিলিয়ান্ট মাইন্ড কিলার...

লিখেছেন জিবরান ২০১৯-০৪-০২ ১৯:১২:৩৫

এমদাদুল হক নামে একটা তরুণের কথা সারা বাংলাদেশ জেনে গেছে। এই তরুণ চট্টগ্রাম ইউনিভার্সিটির প্রাণিবিদ‍্যা বিভাগ থেকে পাশ করেছে। অসামান‍্য ফলাফলের জন‍্য সে পেয়েছিলো “প্রধানমন্ত্রী স্বর্ণপদক”। এই তরুণ ডিপার্টমেন্টের শিক্ষক নিয়োগের ভাইভায় অংশগ্রহণ করতে গিয়েছিলো। ভাইভা দেয়ার আগেই, তাকে কিছু নিকৃষ্ট পাষণ্ড নোংরা হাতের কবলে পড়তে হয়। তাকে ভাইভা দিতে দেয়া হয়নি। ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা নাকি তাকে শিবির আখ‍্যা দিয়ে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করে। দৈনিক প্রথম আলোয়, সে বিষয় একট...বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ৩৪১ বার পঠিত         

একে পার্টির অস্বস্তির জয় এবং আগামীর তুরস্কের রাজনীতি।

লিখেছেন জিবরান ২০১৯-০৪-০২ ০৫:২৫:৪৩

গতকাল অনুষ্ঠিত নির্বাচনে একে পার্টি সর্বোচ্চ ভোট পেয়ে একনম্বর দল হলেও এই বিজয়টা দলের জন্য স্বস্তিকর নয়। কারণ, সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ শহর ইস্তান্বুল এবং রাজধানী আনকারায় সিটি মেয়র পদে একে পার্টির হেরে যাওয়া সামনের দিনের বেশকিছু সংকেত বহন করে। আজ থেকে ২৫ বছর আগে ইস্তান্বুল ও আনকারায় ইসলামপন্থীদের জয়ের মাধ্যমে তুরস্কে ইসলামপন্থীদের বিজয়ের দ্বার উন্মোক্ত হয়েছিল, সে নির্বাচনে এরদোয়ান নিজেও ইস্তান্বুলের মেয়র হয়েছিলেন। এরপর থেকে টানা ৪ টি স্থানীয় নির্বাচনে এই দুই গুরুত্বপূর্ণ শহরের মেয়রশীপ তাদের হাত...বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ৩০০ বার পঠিত         

বনানীও কি আমাদের বোধ জাগ্রত করতে পারবে না?

লিখেছেন লাবিব আহসান ২০১৯-০৪-০২ ০২:৩৬:৩৩

আর দশটা সকালের মতোই শুরু হয়েছিলো সকালটা। বিপণী বিতানগুলো সাজিয়ে বসেছিলো তার হরেক পণ্যের পসরা। অফিসের ল্যাপটপগুলোর স্ক্রিনে জটিল সব হিসেব নিকেশ ভেসে উঠছিলো। কী বোর্ডগুলোতে অবিশ্রান্তভাবে শব্দ হচ্ছিলো, "খট খট খট....."। বয়ে চলছিলো সময়ের কাঁটা। সবাই ব্যস্ত নিজেদের কাজ কর্ম নিয়ে। মাথায় হয়তো নতুন দিনের স্বপ্ন ঘুরপাক খাচ্ছিলো, "এবার পল্টনকে গুডবাই বলে দিয়ে গুলশানের দিকে একটা বাসা নিতে হবে। " কিংবা কারো মাথায় ঘুরছিলো গ্রামে আরও বিঘা দুয়েক জমি নেয়ার চেষ্টা। টাকা প্রায় জমে এসেছে। কারো চোখে ভাসছিলো ব্যবসাট...বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ৪৮৪ বার পঠিত         

আপাত ভালো কাজের প্রশংসা, সমর্থন শুধু ইতিবাচক মনের পরিচয় দেয় না, কিছু ক্ষেত্রে নোংরা মানসিকতা ও কুপমুন্ডকতারও পরিচয় দেয়

লিখেছেন অদ্রি হাসান ২০১৯-০৪-০১ ১৭:২৭:৩৭

কোন ব্যক্তি, দল বা সংগঠনের ভালো কাজের প্রশংসা, সমর্থন ও সহযোগিতা যেমন আমাদের  ইতিবাচক মনের পরিচয় দেয়, এমনকি কিছু ক্ষেত্রে তা নোংরা মানসিকতা ও কুপমুন্ডকতারও পরিচয় দেয়। ১। ব্যক্তি পর্যায়: তিনি ভালো লিখেন, সুন্দর বক্তব্য দেন ও যোগ্যতা সম্পন্ন তাই আমরা তার প্রশংসায় পঞ্চমুখ, কিন্তু তিনি তার ভালো লিখা,  সুন্দর  বক্তব্য ও যোগ্যতা দিয়ে এমন কারো জন্য জনসমর্থন তৈরি করেন, যারা নিরপরাধ মানুষ হত্যা করে, ধর্ষণের পৃষ্ঠপোষকতা করে ইত্যাদি। তাহলে তার আপাত যোগ্যতার প্রশংসা, সমর্থন আমাদের নোংরা মা...বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ৩২০ বার পঠিত         

আমিই যখন জ্বীনের রোগী ভাল করলাম! জ্বীনের সাথে সমস্যা কোথায়?

লিখেছেন Nazrul Islam Tipu ২০১৯-০৪-০১ ১৬:৩৫:০১

জ্বীন মানুষের ইচ্ছা শক্তিকে দখল করে। মানুষের মুখ দিয়ে জ্বীন কথা বলে। তখন মানুষের চোখ দিয়ে জ্বীনেরা দেখে থাকে। মানুষের কান দিয়ে জ্বীন শুনে ও উত্তর দেয়। এই লাইনের চিকিৎসকদের ধারণা, জ্বীনে আক্রান্ত ব্যক্তি কখনও হ্যাঁচ্ছো দেয় না! দিতে পারে না। যদি কোনভাবে হ্যাঁচ্ছোটা বের করা যায় তাহলে চিকিৎসা ছাড়াই জ্বীন ভূ-পৃষ্টে আছড়ে পড়বে, মারাও যেতে পারে। সে জন্য জ্বীনে ধরা রোগীর নাকে সরিষার তৈল লাগানো হয়! মরিচ পোড়া গন্ধ ঢুকানো হয়, যাতে তার শরীরে হ্যাঁচ্ছোর উদ্রেক হয়। রোগীকে জোড়ে ধমক দিলে কিংবা মৃদু পিটালেও জ্ব...বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ১২০৫ বার পঠিত         

আমার তুরস্ক ভাবনা...

লিখেছেন কহেন কবি ২০১৯-০৪-০১ ১৬:২৪:১৭

লিস্টে তুরস্কে অবস্থানরত অনেক পরিচিত মুখ আছেন। যাদের সাথে সরাসরি কখনো দেখা না হলেও অনেকবার কথা হয়েছে এমন কিছু প্রিয় মুখ। আজকে তুরস্কে স্থানীয় সরকার নির্বাচন হচ্ছে, এ নিয়ে এক এলাকায় একে পার্টি তথা প্রেসিডেন্ট এরদোয়ানের দলের প্রার্থীর এক আত্মীয়ের গুলিতে ইসলামিক পার্টি সাদেত পার্টির দুইজন সমর্থক নিহত হয়েছেন। (নিউজের সত্যতা জানিনা তবে যারা শেয়ার করেছেন বিশ্বস্ত) অনলাইনে অনেক আগে থেকেই পরিচত মুখদের বিশেষ করে অনলাইনে দুই সমীকরণ থেকে কথা বলতে দেখেছি। এক পক্ষ এরদোয়ানের গুনগান গাইতে গাইতে এমন অবস্থায়...বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ৩০১ বার পঠিত         

ডিএনসিসি মার্কেটে আগুন এবং কিছু কথা...

লিখেছেন Muhammad Sajal ২০১৯-০৪-০১ ১৬:১৮:১০

যতদুর মনে পড়ে, গুলশানের একই মার্্কেটে তিন/চার বছর আগে আরেকবার মারাত্মকভাবে আগুন লাগে। সেবারও একটা কথা উঠসিল যে কোন একটা পক্ষ চায় না এইখানে কাচাবাজার থাকুক।মৌচাক মার্কেটে যেবার আগুন লাগলো তখনও একাধিক আনঅথরাইজড সোর্স থেকে শোনা গেছে মার্কেট তুলে দেয়ার চক্রান্তের অংশ ছিল আগুন লাগানো।শাহবাগে গণজাগরন মঞ্চে জুতা আর পানির বোতল খাওয়া জনৈক ব্যক্তি বলতেসেন এখন নাকি এইখানে বহুতল আন্তর্জাতিক মানের শপিং কমপ্লেক্স করা হবে। এই প্রসঙ্গে বলতে চাই, খুব সম্ভবত ২০১১/১২/১৩ সালের দিকে বসুন্ধরা শপিং কমপ্লেক্সে আগু...বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ২৭৮ বার পঠিত         

তুরষ্কের স্থানীয় নির্বাচনঃ সারাদেশে এরদোয়ানের প্রত্যাশিত জয় কিন্তু হাতছাড়া হলো রাজধানী আংকারা

লিখেছেন জিবরান ২০১৯-০৪-০১ ১৬:১৩:০৩

গতকাল ৩১ মার্চের স্থানীয় নির্বাচনে সারাদেশে ৪৪.৯৫% ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছে এরদোয়ানের একে পার্টি। আতার্তুকের সিএইচপি ৩০.২৫% ভোট পেয়ে দ্বিতীয় অবস্থান করলেও তারা রাজধানী আংকারায় একে পার্টিকে পরাজিত করে চমক লাগিয়ে দিয়েছে। গতকাল সর্বমোট ৩০ টি সিটি কর্পোরেশন, ৫১ টি জেলা পৌরসভা, ৩৩৪ টি সিটি কর্পোরেশন অধিনস্থ পৌরসভা এবং ৯৭৩ টি উপজেলা পৌরসভায় (বাংলাদেশের ইউনিয়নের মত) নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সিটি কর্পোরেশন: মোট ৩০ টিএকে পার্টি : ১৬টিতে বিজয়ী হয়েছে। (ইস্তানবুল, কোনিয়া, বুরসা, কায়সেরি, উরফা,গাজি আনতেপ, ট্র...বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ২৮৯ বার পঠিত         

ইস্তানবুলের বিজয় এবং মুসলিম উম্মাহর করনীয়...

লিখেছেন ইবনাত ২০১৯-০৩-৩০ ১৭:৫১:৪৫

আজ নতুন একটি যুগের এবং নতুন একটি বিজয়ের প্রয়োজন। সমগ্র মানবতা আজ অধীর আগ্রহে যার অপেক্ষা করছে। নতুন একটি শান্তিময় দুনিয়া গঠন করার জন্য আমাদের এই মুসলিম জাতি পুনরায় নেতৃত্ব দিবে। সম্মানিত একটি জাতির এবং সম্মানিত একটি ইতিহাসের উত্তরাধিকারীগণ এই বিজয়ের পতাকাবাহী হিসাবে কাজ করবে। ইস্তানবুল বিজয়ের খুব বেশী আগে নয় মাত্র ৫০ বছর পূর্বে ১৪০০ সালের শুরুর দিকে তৈমুর লং যখন আনাতলিয়াতে (Anatoliya) আক্রমণ করেছিল তখন সবাই ভেবেছিল যে- সব কিছুই ধ্বংস হয়ে গিয়েছে। মুসলিম বিশ্ব অন্যতম বড় এক দুর্দশায় নিপতিত হয়েছি...বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ৪৫৭ বার পঠিত         

মুসলিম বিশ্ব আজ জিম্মি ‘ডলার’ বাণিজ্যের কাছে!

লিখেছেন রূপা ২০১৯-০৩-৩০ ১৭:৩৬:২২

আমরা সবাই জানি , ১৯৯৩ সাল:১ডলার=৪০টাকা।২০১৮ সাল:১ডলার=৮০টাকা।সময়ের ব্যবধান:২০১৮-১৯৯৩=২৫ বছর।টাকার ব্যবধান:৮০-৪০=৪০টাকা।ডলারের ব্যবধান :১-১=০ডলার। অর্থাৎ, প্রতি ২৫ বছর সময়ের ব্যবধানে টাকার মান প্রতি ৮০টাকায় কমেছে ৪০টাকা।ওদের ১ডলার কিন্তু ১ডলারই আছে।এই ৪০টাকা গেলো কোথায়? হ্যাঁ,সময়ের ব্যবধানে এভাবেই আমার টাকাকে আমার পকেটে রেখেই শোষন করে নিচ্ছে ডলার/ইউরো নামক মুদ্রার প্রতিনিধিত্বকারী লুটেরার দল।এই শোষিত অর্থের মাধ্যমেই ক্ষেপনাস্ত্র বানিয়ে আমার উপরই নিক্ষেপ করছে ওই দস্যু,সন্ত্রাসী ,জঙ্গী রাষ্ট...বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ২৬৮ বার পঠিত         

 নিউজ আপডেট

 এ সপ্তাহের সর্বাধিক মন্তব্যকৃত পোস্ট

 আর্কাইভ