অনলাইনে আছেন

  • জন ব্লগার

  • ১৪ জন ভিজিটর

নোটিশ বোর্ড

বাংলাদেশে মোসাদ...

লিখেছেন আফগানী ২০২২-০৫-২৬ ২২:৩৫:০৯

  ঢাকা বিমানবন্দর। নভেম্বর ২০০৩। একটি বিমান ছেড়ে যাবে ব্যাংককের উদ্দেশ্যে। সব কিছু ঠিকঠাক। এর মধ্যে বিমানে ঘটাঘট উঠে পড়লেন সিকিউরিটি অফিসাররা। ইনকিলাব পত্রিকার এক সাংবাদিক সালাউদ্দিন শোয়েব চৌধুরিকে তল্লাশি করা শুরু করলেন। তারপর নিশ্চিত হয়ে তাকে নিয়ে নেমে গেলেন বিমান থেকে। ইনকিলাব পত্রিকা এদেশের হুজুরবান্ধব পত্রিকা। এই পত্রিকার সাংবাদিক ছিলেন সালাউদ্দিন শোয়েব চৌধুরি।    গোয়েন্দা তথ্য পেয়ে ডিবি তাকে এরেস্ট করে। পরে তার কাছে তল্লাশি করে সে তথ্যের সত্যতা পায়। শোয়েব চৌধুরির কাছে ত...বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ৩২২ বার পঠিত         
সকল পোস্ট (ক্রমানুসারে)

জামায়াত কী ফিরকা তৈরি করে?

লিখেছেন আফগানী ২০২২-০৬-০২ ১৯:৩৫:২৫

  জামায়াতের বয়স তখন মাত্র ৫ বছর। ১৯৪৬ সাল। লাহোরে একটি সম্মেলনে বক্তব্য দিচ্ছিলেন মাওলানা মওদূদী রহ.। বক্তব্যের শেষ দিকে তিনি কিছু অভিযোগের জবাব দেন। এর মধ্যে একটি ছিল, জামায়াতে ইসলাম নতুন ফিরকা তৈরি করছে। এর মাধ্যমে মুসলিমদের মধ্যে বিভাজন তৈরি হচ্ছে।   এর উত্তরে মাওলানা বলেন, //বলা হয় যে, আমাদের জামায়াত মুসলমানদের মধ্যে একটি নতুন ফিরকার গোড়া পত্তন করেছে। এ ধরনের কথা যারা প্রচার করে থাকেন, সম্ভবত ফিরকা সৃষ্টির মূল কারণগুলোই তাদের জানা নেই, মুসলমানদের মধ্যে যেসব কারনে ফিরকা বা উপদ...বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ৬৩ বার পঠিত         

আমরা কেন জামায়াত করি?

লিখেছেন আফগানী ২০২২-০৬-০২ ১৩:০৭:০৬

ইসলাম কায়েমের এ মহান দায়িত্ব একা একা পালন করা যায় না, এটা আমাদের পক্ষে সম্ভব নয়। যারাই নবীর প্রতি ঈমান এনেছেন তাদেরকেই সংঘবদ্ধ করে নবীগণ ইসলামী আন্দোলন করেছেন। যে সমাজে ইসলাম কায়েম নেই সেখানে ব্যক্তি জীবনেও পুরোপুরি মুসলিম হিসেবে জীবন যাপন করা কঠিন। আর আল্লাহ্‌র দ্বীনকে সমাজ জীবনে কায়েম করার কাজ তো জামায়াতবদ্ধভাবে ছাড়া কিছুতেই সম্ভব নয়। তাই আমরা যারা দ্বীন কায়েমের দায়িত্ব পালন করতে চাই তারা জামায়াতবদ্ধ জীবন যাপন করি। আর দ্বীন প্রতিষ্ঠার দায়িত্ব কিন্তু নফল দায়িত্ব নয়। এটা অত্যাবশ্য...বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ১১১ বার পঠিত         

জানাযার নামাজে আপত্তির সামাজিক প্রভাব....

লিখেছেন জিবরান ২০২২-০৫-৩১ ১২:৩১:৫৯

  রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের কোনো এক সাহাবী চ্যাপ্টা তীরের আঘাতে আত্মহত্যা করেন। তার লাশ রাসূলুল্লাহর কাছে নিয়ে যাওয়া হলো। রাসূলুল্লাহ মৃত্যুর কারণ যখন জানতে পারলেন আত্মহত্যা, তখন আর তার জানাযা পড়লেন না। তবে, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম নিজে জানাযা না পড়লেও সাহাবীদেরকে পড়তে বলেন। ফলে, সাহাবীরা সেই আত্মহত্যাকারীর জানাযা পড়েন। আত্মহত্যাকারী ব্যক্তির জানাযা না পড়ার ক্ষেত্রে রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের অবস্থান যতোটা না রিলিজিয়া...বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ১৬০ বার পঠিত         

চার দেয়ালের বাইরে...

লিখেছেন কহেন কবি ২০২২-০৫-৩১ ১২:২৬:৩৫

১. অসুস্থ শাশুড়িকে রেখে জব করতে যায় অদ্রীতি। সেবার জবে যাওয়ার পথে রীধার সাথে কথা বলতে বলতে যাচ্ছে।রীধার পরিচয়টা আগে দিয়ে রাখি- . "রীধা অদ্রীতির কলেজ ফ্রেন্ড । কলেজ শেষে দু'জনেরই ভার্সিটিতে আসে কিন্তু রীধা সহশিক্ষা কার্যক্রম থাকায় ভার্সিটিতে এডমিশন নিলনা।এরি মধ্যে তার বিয়ের কথাবার্তা চলছে আর রীধা চাইতো আল্লাহ ভীরু এবং দায়ী ইলাল্লাহর কাজ করে এমন কাউকে যে হবে একজন প্রকৃত অর্থে ধর্মান্ধ। খুব দ্রুতই বিয়ে হয়ে গেল রীধার চাওয়ার মত একজনের সাথে। এখন লেখাপড়া ছেড়ে ঘরসংসার নিয়ে ব্যস্ত সময়...বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ১৪২ বার পঠিত         

লেবানন এবং শ্রীলঙ্কার পরে যেই দেশটি দেউলিয়া হতে যাচ্ছে তা হয়তো পাকিস্তান...

লিখেছেন কহেন কবি ২০২২-০৫-৩১ ১২:২৫:১০

  গত কয়েক বছর ধরে পাকিস্তান ঋণের চাকায় ঘুরছে। কারণ পাকিস্তানের অর্থনীতি এতই নাজুক যে কিছুদিন পর পর আইএমএফের থেকে ঋণ আনতে হয়। সেই ঋণ যখন সুদে আসলে পূরণ করার সময় আসে তখন আরো বেশি ঋণ নিয়ে আগের দায় এবং নতুন চাহিদা পূরণ করতে হয়। কিন্তু ঋণের উপর কত দিন চলা যায়? ইমরান খান যখন ক্ষমতায় আসে তখন আইএমএফ এর থেকে ঋণ নিতে চাইলে তারা কঠিন কিছু শর্ত দেয়। প্রথমত, পাকিস্তান সরকারকে ট্যাক্সের হার বাড়াতে হবে, দ্বিতীয়ত, জ্বালানি তেল, গ্যাস, সবকিছুর মূল্য বৃদ্ধি করতে হবে, তৃতীয়ত, সরকারি সম্পত্তি বি...বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ১৪৩ বার পঠিত         

একটি ইবলিশি ধারণা—উত্তম আমি অধম সে...

লিখেছেন কহেন কবি ২০২২-০৫-৩১ ১২:২২:৩৫

  ফেরেশতাদের সাথে পরামর্শ শেষ করার পরে একজন ফেরেশতা বিভিন্ন স্থান থেকে মাটি এনে আল্লাহর সামনে দিলেন । সেই মাটি ছিলো আঠালো মাটি। তিনি নিজ হাতেই সেই মাটি দিয়ে সৃষ্টি করলেন আদমের অবয়ব। রূহ দিলেন না তখনও আল্লাহ সেই অবয়বের মধ্যে। সেই অবয়বটি চল্লিশ রজনী পর্যন্ত পড়ে থাকলো। ইবলিশ এসে এসে ঘুরে যেতো সেই অবয়বের আশেপাশে। ঘুরে ঘুরে দেখতো। তাচ্ছিল্ল্য করতো। এই তাচ্ছিল্যতেই শুধু সীমাবদ্ধ থাকতো না সে। পা দিয়ে তাতে আঘাত করতো। অবয়বটির মুখ দিয়ে ভেতরে ঢুকতো আর পেছন দিক দিয়ে বের হয়ে দাম্ভিকতার সাথে বলতো&md...বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ২৪৯ বার পঠিত         

জিয়া হত্যাকাণ্ড ছিল ধারাবাহিকতার অংশ

লিখেছেন আফগানী ২০২২-০৫-৩০ ১৫:০০:৪৫

  পাকিস্তান সেনাবাহিনীর বাঙালি অফিসারদের একাংশ ১৯৬৫ সাল থেকে ভারতীয় চক্রান্তের সাথে জড়িত হয় গোপন সংগঠন নিউক্লিয়াসের মাধ্যমে। এরই ধারাবাহিকতায় ১৯৭১ সালে পাকিস্তান সেনাবাহিনীর বাঙালিদের একটা অংশ জিয়ার আহ্বানে ক্যু করে। সেদিন জিয়া স্বাধীনতার ঘোষণা না দিলে ক্যু হওয়ার মতো কিছু ঘটতো না। তাদের সাথে বাঙালি সৈনিকরা ক্যু করে। সেই যে সেনাবাহিনীর মধ্যে শৃঙ্খলা নষ্ট হয়েছে তা জিয়া খুনের মাধ্যমে শেষ হয়েছে।     পঁচাত্তরের ১৫ আগস্ট শেখ মুজিব সপরিবারে নিহত হয় সেনাবাহিনীর একটি ক্যু এর মাধ্...বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ৩২ বার পঠিত         

বিনা অনুমতিতে জিহাদ দোষনীয়

লিখেছেন আফগানী ২০২২-০৫-৩০ ১৪:৫২:১৫

  কাদেসিয়ার যুদ্ধ ও মাদায়েন থেকে পালিয়ে যাওয়ার পর পার্সিয়ান সৈন্যদের আর কোনো আশা থাকলো না। তারা পাহাড়ে পালিয়ে গেল। আর এদিকে সা'দ বিন আবি ওয়াক্কাস রা.-এর নেতৃত্বের পারস্যের বেশিরভাগ গুরুত্বপূর্ন শহর মুসলিমদের নিয়ন্ত্রণে চলে এলো। উমার রা.-এর নির্দেশে সা'দ রা. সেনাবাহিনীকে বিশ্রাম ও শহর গঠনে নিয়োজিত করেছিলেন। বহু মানুষ মুসলিম হচ্ছে। তাদের শিক্ষার ব্যবস্থা করা হলো। নতুন প্রাশাসনিক ও বিচার ব্যবস্থা গড়ে তোলা হলো।    এদিকে এক পার্সিয়ান কমান্ডার হরমুজান রামহরমুজে পার্সিয়ান মুশরিকদের...বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ২৯ বার পঠিত         

পাকিস্তানের পারমানবিক অস্ত্রের ইতিকথা

লিখেছেন আফগানী ২০২২-০৫-২৯ ১১:০২:০৪

  ১৯৪০ সালের কথা। তখন জাপান ছিল পরাশক্তিদের মধ্যে একটি। পৃথিবীর বেশিরভাগ সমুদ্রের নিয়ন্ত্রণ নিতে তারা বেশ মরিয়া। ১৯৪১ সালে তারা আরেক পরাশক্তি আমেরিকার বিশাল নৌ-ঘাঁটি পার্ল হারবারে আক্রমণ চালিয়ে তাদের ব্যাপক ক্ষতিসাধন করে। আমেরিকার ৮ টি বিশাল রণতরীর চারটি পুরোপুরি ডুবে যায়, বাকী চারটি ক্ষটিগ্রস্থ হয় মারাত্মকভাবে। সাড়ে তিনশ যুদ্ধ বিমান ধ্বংস হয় ও ২৩৩৫ জন আমেরিকান নেভি মৃত্যুবরণ করে।   এই আক্রমণ চালিয়ে সমুদ্রে একচ্ছত্র আধিপত্য তৈরি করে জাপান। জাপানকে সমীহ করতে থাকে সব পরাশ...বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ৭০ বার পঠিত         

মাদায়েনে এক বিস্ময়কর অভিযান!

লিখেছেন আফগানী ২০২২-০৫-২৭ ০৯:৫১:১৯

  মাদায়েন ছিল ইরাকের একটি শহর। এটি ছিল মুশরিক পার্সিয়ানদের রাজধানী। এখানে সম্রাটের সুরম্য শ্বেত পাথরের প্রাসাদ ছিল। বর্তমানে এই শহর তাক কাসরা নামে পরিচিত।    কাদেসিয়ার যুদ্ধে জয়লাভের পর সা'দ বিন আবি ওয়াক্কাস রা. বহুদিন অপেক্ষা করছিলেন উমার রা.-এর নির্দেশের অপেক্ষায়। উমার রা. প্রায় দু'মাস পর মাদায়েনে বাকী পার্সিয়ানদের দমন করার জন্য অনুমতি দিলেন। মহিলা ও শিশুদের রেখে উমার রা. রওনা হতে বলেছিলেন।  অবশেষে প্রচুর সৈন্যকে মহিলা ও শিশুদের নিরাপত্তায় রেখে রওনা হলেন সা'দ রা.। উমার...বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ৬৮ বার পঠিত         

 নিউজ আপডেট

 এ সপ্তাহের সর্বাধিক মন্তব্যকৃত পোস্ট

 আর্কাইভ